Tools প্রচার করে Affiliate Marketing

র্তমান প্রযুক্তিতে বড় বড় অনেক কাজ টুলস এর মাধ্যমে করা সম্ভব হয়ে থাকে। যেমন আপনি কোন ভিডিও ফরমেট অডিও আকারে রূপান্তরণ করতে চাচ্ছেন! এই কাজটি অনলাইনের বিভিন্ন টুলস এর মাধ্যমে সহজে করা যায়। অনেকে আবার এই কাজটি করতে মোটা অংকের টাকা চেয়ে বসে!

  • কিন্তু আপনি নিজেই বলুন তো যে জায়গায় টাকা খরচ করার দরকার ছিল না! সেটাতে আপনার টাকা খরচ করার সম্ভাবনা থাকে? আর টাকা খরচ না করেই টুলস আমাকে কতটা সাহায্য করলো? যাইহোক আমি বোঝাতে চাচ্ছি যে, অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাটফর্ম বা প্রতিষ্ঠান আমাদেরকে টুলস সেবা প্রদান করে।
  • এই টুলস সেবা উপভোগ করতে বিভিন্ন কনটেন্ট ক্রেটার অনেক ওয়েবসাইটে দৈনিক ভিজিট করে। আমরা আজকে এমন একটি ওয়েবসাইট নিয়ে কথা বলব যেটি ঠিক এমনই টুলস সেবা প্রদান করে। এবং এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনারা নিজেরাও চাইলে টুলস সেবা গুলি উপভোগ করতে সক্ষম হবেন।

পাশাপাশি আজকের টুলস ওয়েবসাইটটি নিয়ে মূল আলোচ্য বিষয় অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং! নির্দিষ্ট এই প্রতিষ্ঠানে আপনারা অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে জয়েন হয়ে, টুল সেবা নির্দিষ্ট গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দিয়ে তাদের কাছ থেকে কিছু কমিশনও লুফে নিতে পারবেন। শুরুতে অনেক কথা বলা হয়ে গেল, যারা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এবং টুলস সম্বন্ধে কিছুই জানেন না তারাও একটু ধৈর্য ধরে শেষ পর্যন্ত পড়ুন বিস্তারিত সহজ ভাষায় বোঝানোর চেষ্টা করছি।

Tools কি?

টুলস হলো এক ধরনের সেবা বা সার্ভিস। এই টুলস দিয়ে আপনি আপনার নির্দিষ্ট ভাষা চাইলে অন্য ভাষায় রূপান্তরণ করতে পারবেন। অনলাইনে এমন কিছু টুলস রয়েছে যেগুলি ভিডিও ফরমেটকে অডিও করতে সক্ষম হয়।

সহজ উদাহরণ হচ্ছে, টুলস ব্যবহার করা হয় বিভিন্ন কাজে। যেমন আপনি আপনার ভিডিওর সঙ্গে আরও অনেক কিছু জোড়া লাগাতে চাচ্ছেন! এখন এই জোড়া আপনার ভিডিওতে বিভিন্ন টুলস কাজে লাগিয়ে করা সম্ভব হবে! আপনি নিশ্চয়ই ভিডিও এডিটিং এর কথা শুনেছেন।

  • এই ভিডিও এডিটিং এর মতই বিষয়টা। অর্থাৎ টুলস দিয়ে নির্দিষ্ট কোন কাজ সহজে এবং দ্রুততার সাথে সম্পূর্ণ করা যায়। অনলাইনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ধরনের টুলস সেবা প্রদান করে। আরেকটি সহজ উদাহরণ হচ্ছে, আপনার ফটোর পিএনজি ফাইল এটি পিডিএফ ফাইলে কনভার্ট করতে টুলস ব্যবহার করতে হয়।

অনলাইনের বিভিন্ন টুলস ব্যবহার করে যেকোনো ধরনের পিএনজি ফাইল পিডিএফ ফাইল এ রূপান্তরণ করা যায়। হ্যাঁ আলাদা আলাদা নির্দিষ্ট এই ধরনের সেবা অনেক প্ল্যাটফর্ম দিয়ে থাকে। আশা করি টুলস কি এ বিষয়টি এতক্ষণে ক্লিয়ার হয়েছেন। চলুন পরের ধাপের বিষয়টি আরো ভালোভাবে জানার চেষ্টা করি।

Tools প্রচার কি?

  • টুলস আমরা সেবা হিসেবে ধরলাম। আর প্রচার হচ্ছে মানুষের কাছে পৌঁছানো। না না যেমন তেমন মানুষের কাছে নয়, ধরুন আপনি আপনার সেবাটি রেখেছেন মোবাইল কোম্পানির মোবাইল ফোন গুলিতে,,, তাহলে যারা মোবাইল ফোন সম্বন্ধে জানে কিনতে চাই কিংবা আগ্রহী তাদের কাছে প্রচার।

টুলস সেবা প্রচার হচ্ছে, নির্দিষ্ট সেবাটি নির্দিষ্ট গ্রাহকের কাছে পৌঁছানো। এই পৌঁছানো কাজ সহজে করার জন্য এখন সোশ্যাল মিডিয়ার অভাব নেই। ফেসবুকের কথাই যদি বলি এখানে প্রতিদিন লক্ষাধিক জনগণ শুধু একরকম নয় হাজার ধরনের গ্রাহক ফেসবুক ব্যবহার করে।

কিছু কিছু জনগণ হয়তোবা আপনার এই সেবা গ্রহণ করবে না, কিংবা তারা এই সেবা সম্বন্ধে ততটা বোঝেনা। তবে যারা টুলস সম্বন্ধে বোঝে, এবং টুলস ব্যবহার করতে আগ্রহী থাকে তাদের কাছে প্রচার হলো টুলস প্রচার। অর্থাৎ টুলস প্রচার নির্দিষ্ট গ্রাহকের কাছে করতে হবে, যেন তারা তাদের প্রয়োজনে আপনার সেবাটি গ্রহণ করার জন্য প্রস্তুত থাকে।

Affiliate Marketing মানে?

  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হলো একটা মাধ্যম। এই মাধ্যম অনলাইনের ভাষায় নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সেবা গুলি মার্কেটে ছড়িয়ে দেওয়া। ধরুন আপনি আমার প্রতিষ্ঠানে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে চাচ্ছেন, তাহলে আমি আপনাকে যে কাজ দিব সেটা হচ্ছে, আমার প্রতিষ্ঠানের সেবাগ গুলি সেই গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দিয়া যারা এগুলি উপভোগ করবে।

আরে ভাই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে আপনি কোন প্রতিষ্ঠানে কাজ করবেন, ফ্রিতে না। এই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠান থেকে আপনি কিছু কমিশন পাবেন। আপনার নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানে এই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য বিভিন্ন শর্ত বা চুক্তি থাকবে। এই শর্ত চুক্তি অনুযায়ী আপনাকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার জন্য সেই প্রতিষ্ঠানের সেবা গুলি গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দিতে হবে।

  • এখন আপনি অন্যের প্রতিষ্ঠানের সেবা নির্দিষ্ট গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দিলেন এবং গ্রাহক সেটা উপভোগ করলো। তার বিনিময়ে আপনি সে প্রতিষ্ঠান থেকে কিছু কমিশন পাবেন। কমিশনটা হতে পারে, আপনি যে গ্রাহকের কাছে সেবাটি পাঠিয়েছেন সেই সেবাটি উপভোগ করতে গ্রাহক ১০ হাজার টাকা খরচ করল! তাহলে আপনি কমিশন হিসেবে সেই প্রতিষ্ঠান থেকে কমপক্ষে এক হাজার টাকা এমনিতেই পেয়ে যাবেন।

এই টাকার কমিশন ইত্যাদি সম্পূর্ণ প্রতিষ্ঠানের চুক্তি ও শর্তের ভিতর বলাই থাকে। যাক বলতে বলতে অনেক কিছু বলে ফেললাম সহজ ভাষাকে নিজের মত করে, আশা করি এতক্ষণে নিশ্চয়ই অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং কি এ বিষয়টি আপনি বুঝতে সক্ষম হয়েছেন। চলুন এবার আর্টিকেলের মূল বিষয়টি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর ধাপটি বোঝার চেষ্টা করি।

Tools প্রচার করে Affiliate Marketing

আজকে আমি দারুণ একটি ওয়েবসাইট আপনাদের কাছে শেয়ার করব! এই ওয়েবসাইটটি টুলস হিসেবে বর্তমানে বিভিন্ন সেবা সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকে। তাদের এই টুলস এর সেবা গুলি নির্দিষ্ট গ্রাহকের কাছে প্রচার করার জন্য, তারা অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম চালু করেছে। আপনারা চাইলে এই টুলস এর ওয়েবসাইটে, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার হিসেবে জয়েন করে সেখানে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করাটা এই ওয়েবসাইটে সহজ হবে এ কারণে আমি আপনাদের কাছে শেয়ার করেছি। কারণটি হচ্ছে এই ওয়েবসাইটের মূল সেবাটি টুলস এর সেবা। এই ওয়েবসাইটে প্রায় ৯০ টির বেশি সেবা রয়েছে যেগুলি দারুন সব টুলস হিসেবে কাজ করবে। আর আপনি তো জানেনই টুলস মানুষ ব্যবহার কেন করে?

আপনি যদি সঠিক গ্রাহকের কাছে এই টুলস প্রচার প্রচারণা করেন, এবং আপনার প্রচারের সেবাটি কোন গ্রাহক উপভোগ করলে আপনি ওয়েবসাইট থেকে কিছু কমিশন পাবেন। যেটা মোটা অংকের একটা পারিশ্রমিক বলতে পারি। তবে ওয়েবসাইটের শর্ত সাপেক্ষ যুক্তি একটু ভিন্ন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করার ক্ষেত্রে!

টুলস এর ওয়েবসাইট যেখানে করা যাবে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংও——- https://www.prepostseo.com/

উপরের এই ওয়েবসাইটে আপনার চাইলে আপনাদের নিজের কোন প্রয়োজনীয় টুলস ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারেন। আবার চাইলে টাকা খরচ করে প্রিমিয়াম ভার্সনে টুলস গুলি আরো বেশি সুবিধা উপভোগ করা যায়।

এখন অ্যাফিলেট মার্কেটের হিসেবে এই ওয়েবসাইটে কাজ করতে হলে, আপনার গ্রাহককে প্রিমিয়াম ভার্সনে তাদের টুলসের সেবা উপভোগ করতে হবে। এই গ্রাহক যত বেশি খরচ করবে এই টুলস সমূহ উপভোগ করার জন্য আপনি তত বেশি কমিশন পাবেন ওয়েবসাইট থেকে।

টাকা উত্তোলনঃ $25 ডলার হলে বিভিন্ন মাধ্যমে উত্তোলন করার সুযোগ রয়েছে।

কমিশন আপনার একাউন্টে যোগ যেভাবে হবেঃ আপনার প্রচার করা টুলস কোন গ্রাহক প্রিমিয়াম ভার্সনে, যত খরচ করবে তার 30% (প্রথমবারের মতো) লাইফ টাইম 10% কমিশন উপভোগ করতে পারবেন।

এই টুলস ওয়েবসাইটে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার হিসেবে কাজ করে ইনকামঃ আপনি ওয়েবসাইটের অ্যাফিলিয়েট পাটনার হিসেবে জয়েন করবেন। (ফ্রিতে জয়েন করার সুযোগ আছে) তারপর তাদের টুলসসমূহ গ্রাহকের কাছে প্রচার করার জন্য, আপনি আপনার অ্যাফিলিয়েট লিংক ব্যবহার করবেন।

  • এবং কোন গ্রাহক যদি আপনার এই লিঙ্ক থেকে রেজিস্ট্রেশন করে টুলস এর সেবা উপভোগ প্রিমিয়াম প্যাকেজে করে, প্রত্যেকটি খরচে আপনার নির্দিষ্ট কমিশন একাউন্টে চলে আসবে। অর্থাৎ গ্রাহক যদি প্রতি মাসে ৫০ ডলার খরচ করে, তাহলে আপনি ৫ ডলার প্রতি মাসে সেই গ্রাহক থেকে অটো পেয়ে যাচ্ছেন।

মাসিক ইনকামঃ আপনি একটু ভাবুন যদি সঠিক গ্রাহকের কাছে আপনি, প্রচার করেন এবং তারা সেবা উপভোগ প্রিমিয়াম ভার্সনে করে তাহলে আপনার কত ইনকাম হবে? এর চেয়েও মজার বিষয় আপনার ইনকাম করার জন্য কষ্ট কেমন হবে?

দশ জন যদি সঠিকভাবে প্রিমিয়াম প্যাকেজে তাদের সেবা টুলস উপভোগ করে, তাহলে আপনার ইনকামের কথা আপনি একটু চিন্তা করে দেখুন! প্রতিমাসে $160 এর হিসাব মিলালে আপনি ১৫ হাজার টাকার উপরে ইনকাম করতে পারছেন। $160 ডলারের রেট ক্যালকুলেশন করে সেই ওয়েবসাইটের পার্টনার প্রোগ্রামের শর্ত ও চুক্তিতে বোঝানো আছে। আশা করি আর কোন তথ্য এই ব্লগ থেকে আপনার জানতে হবে না, মূল বিষয়গুলো আমি বোঝানোর চেষ্টা করেছি বাদবাকি কোন বিষয় আপনি ওয়েবসাইট থেকে আরো ভালো ধারনা নিতে সক্ষম হবেন আর্টিকেলটি করার জন্য ধন্যবাদ।